engr.tushar এর ব্লগ

পাইল ক্যাপ চেইক লিষ্ট

পাইল ক্যাপ চেইক লিষ্ট

• পাইলের উপর থেকে দুর্বল কংক্রিট সরিয়ে ফেলুন

• শাটার এর সকল ছিদ্র বা ফাকা বন্ধ করতে হবে

• সব সাইট শলে (সঠিক উলম্ব) রাখতে হবে

• সাটার এর সাপোর্ট ভালভাবে চেইক করতে হবে যাতে করে সাটার ঢালাই এর সময় খুলে না যায় বা ঢালাই মোটা না হয়

• সাটারে কংক্রিট ঢালার লেভেল মার্কিং করতে হবে

• কলামের রডের আনুভুমিক সাপোর্ট কংক্রিট লেভেল এর উপরে থাকতে হবে

• ক্লিয়ার কভার ভালমত চেইক করতে হবে

গ্যাসের অপচয়রোধকারী চুলা

আমরা যেই গ্যাস দিয়ে রান্না করি। রান্নার সময় গ্যাসের পরিপুর্ণ ব্যবহার হয় না। বেশ কিছু গ্যাসের আগুন বা তাপ আশেপাশে চলে যায়। যার কারণ অনেক গ্যাসের অপচয় হয়। MIST এর দুইজন আর্মি ছাত্র এমন একটি গ্যাসের চুলা আবিস্কার বা ডিজাইন করেছেন, যেখানে ৫০ শতাংশ গ্যাসের অপচয় রোধ করা সম্ভব।

1927 সালে আমেরিকাতে যেই চুলার ডিজাইন করা হয়, সেই চুলাই এখনো ব্যবহার হয়ে আসছে বাসা কিংবা রেষ্টুরেন্টে। এতে করে প্রতি বছর অনেক গ্যাসের অপচয় হচ্ছে।

আমরা কতটুকু উচু পর্যন্ত নির্মান করতে পারবো??

মিশরের ফারাওরা যখন গিজার তিনটা পিরামিড নির্মান করেন তখন সেগুলোর উচ্চতা ছিলা ৪৮৭ ফিট বা একটা ৪৮ তলা বিল্ডিং এর সমান উচু। যা এই স্থাপনাগুলোকে তৎকালিন সময়ের সবচেয়ে উচু স্ট্রাকচারে পরিনত করে। এগুলো প্রায় ৪০০০ বছর ধরেই পৃথিবীর সবচেয়ে উচু ভবন ছিল। মানে হচ্ছে এই চার হাজার বছরে মানুষের নির্মিত কোন স্থাপনাই পিরামিডকে টপকাতে পারে নাই।

 

সামান্য ব্যয় বাড়িয়ে স্থাপনা নিরাপদ করা সম্ভব

ভূমিকম্প আতঙ্ক দূরে ঠেলে মানুষকে সচেতন করে তুলতে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে যাচ্ছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড.

জমি জমার পরিমাপ

জমি জমার পরিমাপ

এখানে একটি পরিমাপকে বিভিন্ন ভাবে তুলে ধরা হয়েছে কারন প্রত্যেকে যেন যার যার সুবিধা মতে সহজে বুঝতে পারেন।

১ অযুতাংশ = ৪ বর্গফুট ৫২.৩৬ বর্গ ইঞ্চি।

১ ছটাক = ৪৫ বর্গফুট।

-----------------------------------------

১ শতাংশ =৪৩৫ বর্গফুট ৬৫.৪৫ বর্গ ইঞ্চি।

১ শতাংশ = ১০০ অযুতাংশ।

৫ শতাংশ = ৩ কাঠা। = ১৩০৬.৮ বর্গফুট ।

১০ শতাংশ = ৬ কাঠা। = ৪৩৫৬ বর্গফুট ।

-----------------------------------------

১ কাঠা = ৭২০ বর্গফুট।

১ কাঠা = ৮০ বর্গগজ।

১ কাঠা = ১.৬৫ শতাংশ।

১ কাঠা = ১৬ ছটাক।

অটোক্যাড ভার্সন পরিবর্তন

 

এই সফ্টওয়্যার দিয়ে সহজেই আটৌক্যাড এর ভার্সন পরিবর্তন করা যায়। শুধু তাই নয় অটোক্যাড থেকে অন্য ফরম্যাট যেমন পি.ডি.এফ, ছবি, ডি.এক্স.এফ সহ বিভিন্ন ফরম্যাট এ পরিবর্তন করা যায়। তবে অন্য ফরম্যাট এ পরিবর্তন করতে গেলে টাকা দিয়ে কিন্তু হবে। কিন্তু ভার্সন পরিবর্তন এর জন্য টাকা দিয়ে কেনার দরকার নেই। ফ্রী করা যাবে।

আর এই সফটওয়্যার এর সাইজ ও অনেক ছোট। আপনারা চাইলেই এটি নামিয়ে নিতে পারবেন নেট থেকে।

পৃষ্ঠাসমূহ