engr.tushar এর ব্লগ

সাইট ইঞ্জিনিয়ারের জন্য গুরুত্বপুর্ণ কয়েকটি উপদেশ

  1. 36 মিলি এর চাইতে মোটা রডে ল্যাপিং হবে না।
  2. চেয়ার এর স্পেসিং (এক চেয়ের থেকে আর এক চেয়ার, উভয়দিকে) সর্বোচ্চ এক মিটার।
  3. ডাওয়েল বারের সাইজ সর্বনিম্ন 12 মিলি 
  4. চেয়ারের রড 12 মিলি এর নিচে হবে না
  5. লংবার 0.8% এর কম এবং 6% এর বেশি হবে না ক্রস সেকশনের 
  6. চারকোনা কলামের রড কমপক্ষে 4 টি এবং সার্কুলার কলামে কম্পক্ষে 6 টি থাকতে হবে

এক্সেল এ if ফাংশন

আমরা আজকে আলোচনা করবো কিভাবে এক্সেল এ " if " ফাংশন ব্যবহার করে গ্রেড শীট তৈরি করা যায়। মুলত " if " ফাংশনের ব্যবহার নিয়ে আলোচনা করা।
বাংলাদেশের গ্রেড সিস্টেম নিচের মত

মার্কস

গ্রেড

জি.পি.এ

80-100

A+

5

অটোক্যাড ভিডিও-5 (ডাইমেনশন-2)

এই পর্বে আলোচনা করার হয়েছে ডাইমেনশন স্টাইলের 

  • সিম্বল ও এ্যারো
  • টেক্স

এই দুইটি ট্যাব নিয়ে। আশা করি আপনাদের উপকারে আসবে। ভিডিওটি দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।http://www.youtube.com/watch?v=f6Pyo5jD0SI

A2 পেপার কিভাবে A4 সাইজে ভাঁজ করতে হয়

A2 পেপার A4 এর মত সাইজ করে ভাজ করে ফাইলে রাখতে হয়। এই ভাঁজ করার কিছু নিয়ম আছে। যেন সহজে ফাইলের টাইটেল পড়া যায় এবং ড্রয়িং খোজা যায়। এটার আন্তর্জাতিক নিয়ম আছে। বিভিন্ন দেশ ও প্রতিষ্ঠানে এই নিয়ম মেনে চলা হয়। এমনকি ফাইল ভাজ ঠিক মত না করে পাঠালে অনেক সময় ড্রয়িং ফেরত দেয় কোন কোন প্রতিষ্ঠান। তাই ধাপে ধাপে তা দেওয়া হলো।

চিত্র-01

চিত্র-02

A3 পেপার ভাজ করে রাখতে হবে A4 ফাইলে

কনস্ট্রাকশন কাজে এ-3 পেপার বা কাগজ বেশি ব্যবহুত হয়। কিন্তু আমরা অনেকেই বিভিন্ন ভাবে এটাকে ফাইলে রেখে থাকি। তবে ফাইল ভাজ করারও কিচু স্ট্যান্ডার্ড নিয়ম আছে।

যারা ভাঁজ করতে জানেন না এবং যারা অন্যভাবে ভাঁজ করে থাকেন, তাদের জন্য আজকে এই নিয়ম দেখালাম। আপনাদের ভাল লাগলে অন্যকে জানাতে ভুলবেন না।

চিত্র : ধাপ-01

চিত্র : ধাপ-02

বিভিন্ন মাপের পেপার সাইজ

এখানে বিভিন্ন ধরণের পেপারের সাইজ মিলিমিটারে দেওয়া আছে। আশা করি এটা আপনাদের কাজে লাগবে। এর পরে আমরা বিভিন্ন ধরণের পেপার কিভাবে ভাঁজ করতে হয় সেই বিষয় আলোচনা করবো।

পরিস্কার বা ক্লিনিং করার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান

নাম এলাকা ফোন
এ কে ট্রেডার্স ঢাকা +88028859074
এবসুলেট ক্লিনিং লি: ঢাকা +8801713649238
এডভান্স এনভায়রনমেন্টার ইঞ্জিনিয়ারিং ঢাকা +88028922825
এরো এশিয়া ঢাকা +88029568703
অনন্ত ঢাকা +88021915522770

বাংলাদেশে একটি সম্পত্তি নিবন্ধন করার জন্য ৮ টি ধাপ

১. ভূমি অফিস (ভূমি রাজস্ব অফিস) থেকে মালিকানা অধিকারের রেকর্ড যাচাই করুন, জমির শেষ ট্যাক্স পরিশোধের তারিখ পর্যন্ত

২. ভূমি সহকারী কমিশনার এর অফিস ও নির্দিষ্ট তহশীল অফিসে সম্পত্তির ট্রান্সফার (পরিবর্তন) সার্টিফিকেট এর জন্য আবেদন করুন

৩. আরএস পরিবর্তনের জন্য পরিদর্শনের অনুরোধ করুন - বাধ্যতামূলক, যদি সম্পত্তি ন্যাশনাল হাউজিং কর্তৃপক্ষ বা রাজউক এর নিয়ন্ত্রণে থাকে। এছাড়াও পরীক্ষা করে দেখুন সম্পত্তিটির সব কর সিটি কর্পোরেশন এর রাজস্ব বিভাগ এ পরিশোধ করা আছে কিনা।

পৃষ্ঠাসমূহ