বিভিন্ন ধরনের সিমেন্ট এর গঠন এবং কার্যকারিতা

সিমেন্ট এর প্রকার গঠন উদ্দেশ্য
র‍্যাপিড হার্ডেনিং
লাইম বা চুনের পরিমান বেশি
খুব তাড়াতাড়ি শক্ত হয়। যেখানে দ্রত ফর্মওয়ার্ক সরিয়ে ফেলতে হয় সেখানে এটি ব্যবহার করা হয়।
কুইক সেটিং
সামান্য পরিমান এলুমিনিয়াম সালফেট বাড়ানো হয় এবং জিপসাম এর পরিমান কমানো হয়।
অল্প সময়ে কাজ শেষ করার জন্য। সাধারণত পানির মধ্যে এই ধরণের সিমেন্ট ব্যবহার করা হয়।
লো হিট
ট্রাই ক্যালসিয়াম এলুমিনেট এর পরিমান কমিয়ে
অনেক বড় ঢালাই এর কাজে, যেমন ড্যাম বা বাধ নির্মাণ
সালফেট রেজিসটিং
ট্রাই ক্যালসিয়াম এলুমিনেট এর পরিমান ৬ শতাংশের নিচে নিয়ে আসা
অত্যাধিক সালফেট এর সংস্পর্শে থাকার সম্ভাবনা থাকলে, পানি বা মাটির নিচে সাধারণত । যেমন ক্যানেল এর ধার, রিটেইনিং ওয়াল ইত্যাদি
ব্ল্যাস্ট ফার্ণেস স্ল্যাগ
৬০ শতাংশ স্ল্যাগ সহ ক্লিংকার গ্রিন্ডিং করে
খরচ কমাতে এর ব্যবহার করা হয়
হাই এলুমিনা
বাইঅক্সাইট এবং চুন এর মিশ্রনে, এর সেটিং টাইম সাড়ে তিন থেকে পাঁচ ঘন্টা
উচ্চ তাপ, ঠান্ডা-গরম এবং এসিডিক আবহাওয়া থাকলে
হোয়াইট
আয়রন অক্সাইড মুক্ত কাচামাল ব্যবহার করে
স্থাপত্যিক সৌন্দর্য্য এর জন্য
কালার্‌ড
সাধারণ সিমেন্ট এর সাথে বিভিন্ন খনিজ পদার্থ ব্যবহার করে
ডেকোরেটিভ বা সৌন্দর্য্য এর জন্য
পোজ্জলানিক
পোর্টল্যান্ড সিমেনট এর সাথে পৌজ্জালানিক ক্লিংকার ব্যবহার করে
পানিতে ব্যবহার করার জন্য
এয়ার এনট্রেইনিং
ক্লিংকার গুড়া বা গ্রিনডিং করার সময় খনিজ এবং অপরিশোধিত রেজিন, আঠা, সোডিয়াম লবন ইত্যাদি ব্যবহার করে
অল্প পানি ব্যবহার করেও কার্যউপযোগিতা বাড়ানো
হাইড্রোগ্রাফিক
পানিরোধী বিভিন্ন কেমিক্যাল ব্যবহার করে
কার্য্যউপযোগিতা এবং স্ট্রেন্থ অনেক বেশি

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *