Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

ইট, পর্ব-২ (বিভিন্ন প্রকার ইটের গুণাগুণ)

প্রথম শ্রেণির ইটের গুণাগুণ :

  • উত্তমরূপে পোড়ানো, যার রঙ ও আকার সুষম।
  • আঘাত করলে বাজনার বা ধাতব পদার্থের মতো শব্দ হবে।
  • গঠন বিন্যাস (Texture) উত্তম।
  • ধার বা কিনারাগুলো ধারালো ও সমান্তরাল।
  • পৃষ্ঠতল সমতল কিন্তু মসৃণ নয়।
  • কোনো প্রকার ফাটল বা বিকৃতি থাকবে না।
  • আঁচড় কাটলে কোনো দাগ পড়বে না।
  • ইংরেজি T অক্ষরের ন্যায় স্থাপন করে ১.৫ মি. থেকে ১.৭ মি. উপর থেকে শক্ত মাটিতে ফেললে ভাঙে না।
  • ২৪ ঘণ্টা পানিতে ডুবিয়ে রাখলে নিজস্ব শুষ্ক ওজনের ১/৬ অংশের বেশি পানি শোষণ করে না।
  • এর ঘনত্ব  বা একক ওজন ২০০০ কেজি/ঘনমিটার।
  • সর্বনিম্ন চাপ শক্তি ১৭৫ কেজি/বর্গ সেমি।

দ্বিতীয় শ্রেণির ইটের গুণাগুণ :

  • এর পৃষ্ঠদেশ কিছুটা অসমৃণ।
  • এর আকৃতি অসম হয়ে থাকে।
  • প্রথম শ্রেণির ইটের মতই শক্ত।
  • রঙকিছুটা সিঁদুরে কালচে লালের মতো।
  • পানি শোষণক্ষমতা সর্বোচ্চ ২২% ।

তৃতীয় শ্রেণির ইটের গুণাগুণ :

  • এ ধরনের ইটের তলগুলো অসম ও অমসৃণ। কিনারা ভাঙা হয়ে থাকে।
  • এ ইট নরম। এক সাথে আঘাত করলে ক্ষীণ শব্দ হয়।
  • রঙ হালকা হলুদ বর্ণের।
  • জলীয় বাষ্প গ্রহণের ফলে এ ধরনের ইটে লবণাক্ততা দেখা দিতে পারে।

পিক্‌ড ইটের গুণাগুণ :

  • সঠিকভাবে পোড়ানো, আকার আকৃতির সাম্যতাহীন ও গাঢ় রঙের হয়ে থাকে।
  • উচ্চ তাপমাত্রায় পোড়ানোর ফলে গলে আকার ছোট এবং এবড়ো থেবড়ো হয়।
  • ২৪ ঘণ্টা পানিতে ডুবিয়ে রাখলে নিজস্ব শুষ্ক ওজনের ১৫% এর বেশি পানি শোষণ করে না।
  • সর্বনিম্ন চাপ শক্তি ২৪৫ কেজি/বর্গ সেমি।

ঝামা ইটের গুণাগুণ :

  • ভালোভাবে পোড়ানো থাকে।
  • উচ্চ তাপমাত্রায় গলে ফোঁকর (ছিদ্র) অবস্থার সৃষ্টি হয়।
  • এ ইট কালো বর্ণের হয়ে থাকে।
  • আকার-আকৃতি সুষম থাকে না।

ভালো ইটের বা প্রথম শ্রেণির ইটের বৈশিষ্ট্য বা গুণাগুণ :

  • ভালো ইট টেবিল মোল্ডেড ও উত্তমরূপে পোড়ানো হবে।
  • কপার রঙের, ফাটলবিহীন এবং তীক্ষ্ম কোণা বিশিষ্ট হবে।
  • সুষম আকৃতির এবং আদর্শ মাপের হবে।
  • যখন দুটো ইট পরস্পরে আঘাত করা হবে তখন পরিষ্কার ধাতবের মতো শব্দ হবে।
  • এই ইট ভাঙা হলে একটি উজ্জ্বল সমগোত্রীয় গঠন বিন্যাস দেখা যাবে এবং কোনো শূন্যস্থান (void) দৃষ্টিগোচর হবে না।
  • ২৪ ঘণ্টা পানিতে ডুবিয়ে রাখলে নিজস্ব ওজনের ২০% এর বেশি পানি শোষণ করবে না।
  • নখ দিয়ে আঁচড় কাটলে কোনো দাগ পড়বে না।
  • তাপ পরিবহন ক্ষমতা কম হবে এবং শব্দ নিরোধক হবে।
  • ইংরেজি T অক্ষরের ন্যায় স্থাপন করে ১.৫ মি. থেকে ১.৭ মি. উপর থেকে শক্ত মাটিতে ফেললে ভাঙবে না।
  • ২৪ ঘণ্টা পানিতে ডুবিয়ে রাখার পর ছায়াতে শুকানো হলে কোনো সাদা লবণ জমা হওয়া দেখা যাবে না।
  • সর্বনিম্ন চাপ শক্তি ১৭৫ কেজি/বর্গ সেমি।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *