দেয়ালের সৌন্দর্যমন্ডিত কাজের কৌশল

উদ্দেশ্য: দেয়ালের সৌন্দর্যমন্ডিত কাজের কৌশল অর্জন করা।

প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও মালামাল:

যন্ত্রপাতি:   

  1. বড় ড্রাম
  2. ছোট বালতি – ২ বা ৩টি
  3. পাটের ব্রাশ – ২টি
  4. নারকেলের ছোবড়ার ব্রাশ
  5. তারের ব্রাশ
  6. শিরিষ কাগজ
  7. মাচা বা স্ক্যাফোল্ড

মালামাল:

  1. ইট
  2. বালি
  3. সিমেন্ট
  4. পানি
  5. সুতালি

কাজের ধারাবাহিক ধাপসমূহ:

দেওয়ালে সৌন্দর্যমন্ডিত কাজ বিভিন্ন উপায়ে করা যায়। রুচি, সামর্থ্য ও দেয়ালের অবস্থান ইত্যাদি বিবেচনা করে এ কাজ করা হয়ে থাকে। ওয়ার্কিং ড্রইং থাকলে তা ভালোমতো পর্যবেক্ষণ করতে হবে। সাধারণ সৌন্দর্যমন্ডিত কাজের ধারাবাহিক ধাপ মোটামুটি একই রকম।

  1. সৌন্দর্যমন্ডিত কাজের জন্য প্রয়োজনীয় মালামাল সংগ্রহ করতে হবে।
  2. দেয়ালকে ব্রাশ, শিরিষ কাগজ ইত্যাদি দ্বারা ভালোভাবে পরিষ্কার করতে হবে।
  3. পানি দ্বারা দেয়ালের পৃষ্ঠতল ভালোভাবে ধৌত করতে হবে।
  4. প্রয়োজনীয় মাচা বা স্ক্যাফোল্ড তৈরি করতে হবে।
  5. দেয়াল ভেজা অবস্থায়ই কাজ শুরু করতে হবে। যেমন- প্রায় ৯ বর্গমিটার কাজের জন্য ১.৫ কিলোগ্রাম সিমেন্ট এই হারে কাজ অনুযায়ী সিমেন্ট নিয়ে বড় ড্রামে প্রয়োজনমতো পানি দিয়ে সিমেন্ট ওয়াশ তৈরি করে পাটের ব্রাশ দ্বারা প্রলেপ দিতে হবে।
  6. সৌন্দর্যমন্ডিত প্রলেপের কাজ দেয়াল ভেজা থাকতেই সম্পন্ন করতে হবে।

সাবধানতা:

  1. দক্ষ লোক দ্বারা এ কাজ সম্পন্ন করতে হবে।
  2. সিমেন্ট ওয়াশের জন্য তৈরি দ্রবণ আধ ঘণ্টার মধ্যেই শেষ করতে হবে।
  3. ব্যবহারের সময় বার বার কাঠি দ্বারা নাড়তে হবে।
  4. কাজ শেষে দেয়ালকে ৭ দিন পর্যন্ত কিউরিং করতে হবে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *