ফ্লাই এ্যাশের ইট

আজকে আলোচনা করবো ফ্লাই এ্যাশের ইট নিয়ে। কাদা-মাটির ইটের চেয়ে এই ইট বেশ উন্নতমানের এবং পরিবেশ বান্ধব। পরিবেশ বান্ধব বলতে বোঝাচ্ছি যে, এই ইট ফ্লাই এ্যাশ দিয়ে তৈরি যা পরিবেশের বর্জ্য।

উপাদান সমুহ

এই ইটের প্রধান কয়েকটি উপাদান হলো

  • ফ্লাই এ্যাশ
  • সিমেন্ট
  • বালি
  • পানি

ফ্লাই এ্যশের উৎস:

উপমহাদেশের পাওয়ার প্ল্যান্ট এর গুলোর মধ্য শতকরা ৭২ ভাগ কয়লা নির্ভরশীল। এই কয়লা পোড়ানোর ফলে প্রচুর ফ্লাই এ্যাশ উৎপন্ন। এছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই ফ্লাই এ্যাশ উৎপন্ন হয়। এ বিষয়ে আমি আগে আলোচনা করেছিলাম। তাই এই নিয়ে আর বেশি আলোচনা করতে চাই না। শুধু এই উপমহাদেশে প্রতি বছরে প্রায় ৪ কোটি টন ফ্লাই এ্যাশ উৎপন্ন হয়। সাইক্লোন কনভার্টার এর মাধ্যমে কল-কারখানা থেকে এই ফ্লাই এ্যাশ আলাদা করা হয়। পরবর্তিতে এই ফ্লাই এ্যাশ ইটের কাচামাল হিসাবে ব্যবহার করা হয়। 

পরিবেশে ফ্লাই এ্যাশের প্রভাব:

ফ্লাই এ্যাশ পরিবেশ খুব মারাত্বকভাবে ক্ষতি করে বাতাস এবং পানিকে দুষিত করার মাধ্যমে। এবং একে সরিয়ে ফেলার জন্যও অনেক যায়গা নষ্ট হয়। কিন্তু একে যদি আমরা পুন:ব্যবহার করতে পারি তাহলে পরিবেশের উপ ফ্লাই এ্যাশের দুষণ যেমন কমবে তেমনি সম্পদের সঠিক ব্যবহারও হবে। 

সাধারণ ইট এবং ফ্লাই এ্যাশ ইটের তুলনামুলক তালিকা:

গুনাগুন

 

সাধারণ ইট

 

ফ্লাই এ্যাশ ইট

 

মন্তব্য

 

ঘনত্ব

১৬০০-১৭৫০ কেজি/ঘনমিটার

১৭০০-১৮৫০ কেজি/ঘনমিটার

ওজন একটু বেশি

চাপ শক্তি

৩৫-৪০ কেজি/বর্গ সে:মি:

৯০-১০০ কেজি/বর্গ সে:মি:

বেশি লোড নিতে পারে
পানি শোষন

১৫-২৫%

১০-১৪%

ড্যাম্প কম

মাপ সঠিক থাকার ক্ষমতা

সঠিক হয় কম

প্রায় সঠিক থাকে

২৫% মসলা বাচায়

পরিবহনের সময় অপচয়

১০% পর্যন্ত

২% এর কম

৮% খরচ কমায়

প্লাস্টার বিষয়ক

এক পাশ সমান থাকলেও অন্য পাশ থাকে না

দুই পাশেই প্রায় সমান থাকে

১৫% প্লাস্টার কমায়

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *