Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

স মেকারস এবং সেটিং হ্যামার

স মেকারস হ্যামার চিত্র  : স মেকারস হ্যামার ব্যবহার: করাতের দাঁত বা স সেট করতে ব্যবহৃত হয়। সেটিং হ্যামার চিত্র  : সেটিং হ্যামার ব্যবহার: সিট মেটাল কাজে লেভেলিং এবং বেন্ডিং, জয়েন্ট সেটিং-এ ব্যবহৃত হয়।  

বাম্পিং বডি এবং জুয়েলার্স হ্যামার

বাম্পিং বডি হ্যামার (Bumping Body Hammer) চিত্র : বাম্পিং বডি হ্যামার ব্যবহার: ধাতু সোজা করতে এবং গঠন ঠিক করতে ব্যবহৃত হয়। জুয়েলার্স হ্যামার চিত্র  : জুয়েলার্স হ্যামার ব্যবহার: সূক্ষ্ম যন্ত্রপাতিতে পিন এবং স্যাফট ঢুকাতে ব্যবহার করা হয়।

ব্রিক হ্যামার

এক মাথা বেশ পাতলা ধারালো থাকে যা ইট কাটকে সহায়তা করে। চিত্র  : ব্রিক হ্যামার ব্যবহার: ইট বা ফ্লাট পাথর কাটতে ম্যাশনারি কাজে ব্যবহৃত হয় ।  

রিভিটিং হ্যামার

এ হাতুড়ির মুখ বর্গাকার ও সামান্য উত্তল হয়ে থাকে পিন পার্শ্ব দুই দিক থেকে এমনভাবে ঢাল করা হয় যে শেষ প্রান্ত সুচালো ও প্রায় গোলাকার আকার ধারণ করে। চিত্র  : রিভিটিং হ্যামার ব্যবহার: রিভিট লাগানোর কাজে ব্যবহৃত হয়। রিভিটের মাথা তৈরিতেও ব্যবহৃত হয়। বাটালির মতো অংশ রিভিট তোলার কাজেও ব্যবহৃত হয়।  

স্ট্রেইট পিন হ্যামার

স্ট্রেইট পিন হ্যামার: এর মাথা ও মুখ ক্রস পিন হাতুড়ির মতো। তবে মাথা হাতলের অক্ষের সাথে সমান্তরালভাবে অবস্থান করে। তাই একে স্ট্রেইট পিন হাতুড়ি বলে।   চিত্র  : স্ট্রেইট পিন হ্যামার ব্যবহার: পেটানো বস্তুর সাথে হ্যামারের হ্যান্ডেল সমান্তরালে রেখে পেটাতে ব্যবহার হয়। ধাতু বাঁকা এবং প্রসারিত করতে ব্যবহার করা হয়।

স্লেজ হ্যামার

এটি অত্যন্ত ভারী এবং ভারী কাজে ব্যবহৃত হয়। দুই হাত দিয়ে ধরে এটি ব্যবহার করতে হয়। এর ওজন সাধারণত ৩ থেকে ৫ কেজি। চিত্র : স্লেজ হ্যামার ব্যবহার: এটি অত্যন্ত ভারী এবং ভারী কাজে ব্যবহৃত হয়। দুই হাত দিয়ে ধরে এটি ব্যবহার করতে হয়। এর ওজন সাধারণত ৩ থেকে ৫ কেজি। লোহা কাটতে এবং পাথর

ডেড এন্ড হ্যামার

এদের মাথা এবং পিন দুই দিকেই ভোঁতা থাকে। প্রয়োজনে দুই দিক ব্যবহার করা যায়। তবে বল পিন হাতুড়ি অনেকটা ক্রস পিন হাতুড়ির অনুরূপ। তবে পার্থক্য হলো ক্রস পিনের পরিবর্তে এর স্থলে একটি গোলাকার বল থাকে। চিত্র  : নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ডেড এন্ড হ্যামার ব্যবহার: আঘাত করার ক্ষমতা বেশি। হ্যান্ডেলে গ্রিপ জড়ান থাকে ফলে ধরতে সুবিধা। ভাঙা

ক্ল বা থাবা হ্যামার

এই হাতুড়ির পিন পাখির থাবার মতো বাঁকানো। তাই একে ক্ল হ্যামার বলে। সাধারণত এর ওজন বা সাইজ ০.৩ কেজি থেকে ০.৭ কেজি হয়ে থাকে। চিত্র  : নির্মাণকাজে ব্যবহৃত ক্ল হ্যামার ব্যবহার: বেঁকে যাওয়া পেরেক তুলতে এবং পেরেক ঢুকাতে ব্যবহার করা হয়। কাঠের বাটালির উপর হালকা আঘাত দিতে ব্যবহৃত হয়। ফেস দ্বারা স্বাভাবিক কাজকর্ম করা যায়।