Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!

Tag: brick

ভিত্তিতে ইটের দেয়াল নির্মাণ কৌশল

উদ্দেশ্য: ইটের দেয়াল নির্মাণ কৌশল অর্জন করা। প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও মালামাল: যন্ত্রপাতি:    কর্নি ওলন মাটাম স্পিরিট লেভেল বালতি মগ বালি চালুনি বাসুলি মালামাল: ইট বালি সিমেন্ট পানি সুতা কাজের ধারাবাহিক ধাপসমূহ: ওয়ার্কিং ড্রইং ভালো করে পর্যবেক্ষণ করতে হবে। দেয়ালটি কোন বন্ডে তৈরি করতে হবে তা দেখে নিতে হবে। প্রয়োজনীয় মালামাল ও যন্ত্রপাতি সংগ্রহ করতে হবে।

ইট, পর্ব-৪ (ইটের ব্যবহার)

 ইটের ব্যবহার ইটের নাম ইটের ব্যবহার প্রথম শ্রেণির ইট সকল প্রকার স্থায়ী ও উত্তম কাজে। ইমারত, সেতু, রাস্তা, বাঁধ, পিয়ার বা লাইনিং এর কাজে। স্থাপত্যিক কারুকার্যময় কাজে এবং ফেসিং ব্রিক হিসেবে। কংক্রিটের খোয়া তৈরীতে। দ্বিতীয় শ্রেণির ইট গাঁথুনির কাজে। তবে অসমৃণ তল ঢেকে দেওয়ার জন্য প্লাস্টার ব্যবহার করতে হয়। রাস্তা এবং কংক্রিটের খোয়া তৈরিতে। অভ্যন্তরীণ

ইট, পর্ব-২ (বিভিন্ন প্রকার ইটের গুণাগুণ)

প্রথম শ্রেণির ইটের গুণাগুণ : উত্তমরূপে পোড়ানো, যার রঙ ও আকার সুষম। আঘাত করলে বাজনার বা ধাতব পদার্থের মতো শব্দ হবে। গঠন বিন্যাস (Texture) উত্তম। ধার বা কিনারাগুলো ধারালো ও সমান্তরাল। পৃষ্ঠতল সমতল কিন্তু মসৃণ নয়। কোনো প্রকার ফাটল বা বিকৃতি থাকবে না। আঁচড় কাটলে কোনো দাগ পড়বে না। ইংরেজি T অক্ষরের ন্যায় স্থাপন করে

ইট , পর্ব-১

প্রকৌশল কর্মকান্ডে যে সকল মালামাল ব্যবহার করা হয় তাকে প্রকৌশল সামগ্রী (EngineeringMaterials)বলে। আর পূর্তকাজে বহুল ব্যবহৃত সামগ্রীকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যাটেরিয়ালস বলে। যে কোন কাঠামো নির্মাণের ক্ষেত্রে নির্মাণ সামগ্রীর শক্তি, স্থায়িত্ব, উপযোগীতা, সহজলভ্যতা, সৌন্দর্য, ব্যবহার, সংযোজন সরলতা ইত্যাদি দিকগুলো বিবেচনা করতে হয়। কাঠামোর স্থায়িত্ব, নিরাপত্তা, সৌন্দর্য, স্বল্পব্যয় ইত্যাদি নিশ্চিত করতে হলে নির্মাণসামগ্রীর বৈশিষ্ট্য ও গুণগত মান