সিভিল কাজের চুক্তিনামা

 

সিভিল কাজের চুক্তিনামা

প্রথমপক্ষ: নিয়োগদাতা নিডফর ইঞ্জিনিয়ার লি:, কখগ গুলশান, ঢাকা। উহার প্রতিনিধি প্রকৌশলী মো: আশারাফুল হক প্রকল্প সমন্বয়কারী

দ্বিতীয় পক্ষ: সাব কন্ট্রাকটর মেসার্স কখগ , কখগ গুলশান, ঢাকা, যাহার মালিক মো: কখগ

এই মর্মে জানানো যাচ্ছে যে, নিডফর ইঞ্জিনিয়ার এর , গুলশান ক্লাবের, ৪ বেজমেন্ট এবং ২৫ তলা ভবনের সিবিল নির্মান কাজসহ আনুসাঙ্গীক কাজ নিম্নে বর্ণিত শর্ত সাপেক্ষে আপনার প্রতিষ্ঠানের নামে চুক্তি নামা করা হলো।

শর্ত সমূহ:

1. চুক্তিনামা প্রাপ্তির সাত দিনের মধ্যে কাজ শুরু করতে হবে।

2. প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি (বেলচা,তাগারি,সাবল,কোদাল,বালতি,রড কাটার মেশিন, জি.আই তারকাটা ইত্যাদি) ঠিকাদার সরবরাহ করবে।

3. প্রয়োজনীয় মালামাল ঠিকাদারকে নিজ খরচে গোডাউন/সংরক্সিত স্থান থেকে নিয়ে কাজ করতে হবে।(সর্বোচ্চ দুরত্ব ১৫০ ফুট)

4. কর্তৃপক্ষ কাজের যে কোন স্তরে এবং যে কোন সময়ে উক্ত চুক্তি বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে, যদি কাজের অগ্রগতির অবস্থা ও গুণগত মান এবং ঠিকাদারের কর্মক্ষমতা সন্তোষজনক ন হয় এবং যদি ঠিকাদার উক্ত কার্যাদেশ (Work Order) এর যে কোন শর্ত পালনে অপরাগ / ব্যর্থ হন তাহলে তার ওয়ার্ক অর্ডার বাতিল এবং সিকিউরিটি ডিপোজিট বাজেয়াপ্ত করা হবে। এই জন্য কোন ধরনের দাবী বা আবেদন গৃহীত হবে না।

5. কাজ চলাকালীন সময়ে প্রতিটি কার্য দিবসে ঠিকাদার অবশ্যই নিজে সাইটে অবস্থান করবেন এবং তার প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে তার নিযুক্ত লোকজন কাজ করবেন। বিশেষ প্রয়োজনে ঠিকাদার নিজের অনুপস্থিতিতে তার নিযুক্ত একজন ফোরম্যান / সুপারভাইজার এর মাধ্যমে কাজ তত্ত্বাবধান করাতে পারবেন। উক্ত ফোরম্যান/সুপারভাইজার সংশ্লিষ্ট ইঞ্জিনিয়ারের উপদেশ, পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা অনুসারে কাজ করতে বাধ্য থাকবে।

6. ঠিকাদারকে অবশ্যই প্রজেক্টের সাপ্তাহিক মিটিং অথবা যেকোন ধরনের মিটিং এ উপস্থিত থাকতে হবে।

7. ঠিকাদারের প্রতিটা বিল থেকে সর্বমোট বিলে ৫% (শতকরা পাঁচ ভাগ) অর্থ সিকিউরিটি ডিপোজিট হিসাবে কেটে রাখা হবে। যা যেকোন অতিরিক্ত প্রদান অথবা যেকোন ধরনের ত্রুটি বিচ্যুতি ব্যায় সাধনের পর (যদি থাকে) উপরোক্ত সিকিউরিটি ডিপোজিট কার্য সম্পুর্ণ সম্পাদনের তারিখ হইতে ০৬ (ছয়) মাস পর ফেরত দেওয়া হবে।

8. ঠিকাদার কাজের মধ্যবর্তী অবস্থায় যে কোন কারণে কাজ সম্পাদনে অপারগতা প্রকাশ করলে অথবা অন্য কাউকে সাব কন্ট্রাক দিলে অথবা কাজ ফেলে চলে গেলে তবে তার বর্তমান রানিং বিল ও জমাকৃত সিকিউরিটি ডিপোজিট সমুদয় অর্থ বাজেয়াপ্ত করা হবে এবং ওয়ার্ক অর্ডার বাতিল করা হবে।

9. রানিং বিল মাসিক অথবা লক্ষ টাকার উর্ধ্বে সাবমিট করতে হবে যা চেকিং সহ ১৫ (পনের) দিনের মধ্যে প্রদাণ করা হবে।

  1. সকল প্রকার বিল চেকের মাধ্যেম প্রদান হবে। খোরাকি বা এডভান্স বিল প্রদান করা হবে না।
  2. তালিকাভুক্ত নয় (non schedule) এমন আইটেম সমুহের দর (যদি প্রয়োজন হয়) উভয় পক্ষের আলোচনার মাধ্যমে চলতি বাজার দর অনুসার স্থির করা হবে।
  3. ওয়ার্ক অর্ডারের সাথে প্রদত্ত নির্ধারিত রেটে কাজ করতে হবে। লেবারের মজুরি অথবা অন্যান্য জিনিসপত্রের দাম বাড়ার কারনে লেবার রেট বৃদ্ধির আবেদন গ্রহণযোগ্য হবে না।
  4. কাজ চলাকালীন সময়ে সাইটে নিযুক্ত সমস্য লোকজনের নিরপত্তা সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে নিশ্চত করতে হবে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহন ব্যতিরেখে কোন শ্রমিক যেন ঝুকিপুর্ণ কাজে নিযুক্ত না হয় ঠিকাদারকে অবশ্যই তা নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। শ্রমিকের নিরাপত্তা সংক্রান্ত যাবতীয় মালামাল কোম্পানী সরবরাহ করবে, উক্ত মালামাল ব্যবহার ও সংরক্ষনে ঠিকাদারকে সর্বদা সক্রিয় ভুমিকা পালন করতে হবে এবং তা বিনষ্টের কারনে জরিমানার সম্মুকিন হতে হবে তা সত্ত্বেও যদি কোন দুর্ঘটনা ঘটে তবে কোন অবস্থাতেই কোম্পানী ইহার দায়-দায়িত্ব গ্রহণ করবে না।
  5. ঠিকাদার প্রতিদিনের কার্য সম্পাদনের পর সাইট পরিস্কার রাখবে। যদি ঠিকাদারের অসাবধনতা / কর্তব্যহীনতার দরুণ অন্যান্য কাজের ক্ষতি/ক্রটি হয় তবে তা ঠিকাদারকে নিজ খরচে যথাযথ ভাবে পুনরায় সম্পাদন করে দিত হবে।
  6. কাজের নিখুঁত গুণগতমান এবং সন্তোষজনক সম্পাদনের জন্য ঠিকাদার অবশ্যই দায়ী থাকবে। যদি ঠিকাদারের নিজের ভুলের জন্য সংশ্লিষ্ট কাজে কোন ত্রুটি বিচ্যুতি ঘটে, তা ঠিকাদারের নিজ খরচে সংশোধন করতে হবে।
  7. ঠিকাদারকে নির্ধারিত সময় সীমার মধ্যে কাজ শেষ করতে হবে। যদি ঠিকাদারের লোকবলের অভাবে কাজের অগ্রগতি সিডিউল মোতাবেক না হয় সেক্ষেত্রে ঠিকারকে নোটিশ প্রদান করা হবে। নির্দিষ্ট সময় অন্তে ৩ টি নোটিশ প্রদান করার পরও যদি কাজের চাহিদা অনুযায়ী ঠিকাদার দক্ষ লোকবল নিয়োগে ব্যর্থ হন সেক্ষেত্র তার কার্যাদেশ স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাতিল হয়ে যাবে। এ ব্যাপারে ঠিকাদার কোন ওজর আপত্তি করতে পারবে না, করলেও তা গ্রহনযোগ্য হবে না।
  8. সর্বশেষ ছাদ ঢালাই এর পর সাটারিং মালামাল ঠিকাদারকে নিজ খরচে গ্রাউন্ড ফ্লোরের নির্দিষ্ট স্থানে স্থানান্তর করতে হবে।
  9. ঠিকাদারের লোক প্রকার অসামাজিক কাজে লিপ্ত হতে পারবে না, যদি এরকম কিছু ঘটে তার দায়-দায়িত্ব ঠিকাদারকে নিতে হবে।
  10. সাইটে শিশু লেবার (১৮ বছরের নিচে) দিয়ে কাজ করানো যাবে না।
  11. একই সাইটে একই প্রকার কাজের জন্য কোম্পানী যেকোন সময় একাধিক ঠিকাদার নিয়োক করার অধিকার সংরক্ষণ করে।
  12. সকল প্রকার কিউরিং কোম্পানী করবে
  13. কোম্পানী অস্থায়ী লেবার সেড তৈরির মালামাল সরবাহ করবে
  14. বিভিন্ন প্রকার অস্থায়ী ইউটিলিটি সংযোগ কোম্পানি সরবরাহ করবে।
  15. কার্যাদেশ বাতিলের সংগে সংগে সাব-কন্ট্রাকটরের কোন লোককে সাইটে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। কোন বকেয়ে থাকলে, নতুন কন্ট্রাকটরের ফাইনাল বিল পরিশোধের পর পরিশোধ করা হবে।  এবং নতুন কন্ট্রাকটরের রেইট বেশি হলে, সেই বেশি রেইটের দায়ভার আগের সাব-কন্ট্রাকটরকে নিতে হবে।
  16. কোনও শ্রমিকের বকেয়া বিলের জন্য কোম্পানি দায়ি থাকবে না। দায়িত্ব সাব-কন্ট্রাকটরকেই বহন করতে হবে।
  17. যে কোন কাজের সময় সেইফটি রক্ষা করে সকল শ্রমিককে কাজ করতে হবে।
  18. কোম্পানির তালিভুক্ত কোন মেডাক্যাল সেন্টার থেকে শ্রমিকের মেডিক্যাল সার্টিফিকেট কোম্পনিতে জমা দিতে হবে। সার্টিফিকেটের ব্যায়ভার কন্ট্রাকটরকে বহন করতে হবে
  19.  
  20. দ্বিতীয় বা তদুর্ধ্ব তলার জন্য, প্রতি তলাতে ২.৫% হারে বর্ধিত দর হবে।
  21. কোম্পানী যেকোন সময় নিম্নলিখিত কারণে কার্যাদেশ বাতিল করতে পারবে

a. কাজের অগ্রগতি এবং কাজের মান খারাপ হলে

b. ঠিকাদার অথবা ঠিকাদারের লেবার কোম্পানি স্টাফ এর সাথে কোন প্রকার খারাপ আচরণ অথবা অবাধ্য হলে

c. কাজের শর্তসমুহের মধ্যে কোন শর্ত ভঙ্গ করলে

d. কাজের সময় প্রয়োজনীয় সেফটি মেনে কাজ করতে অপারগতা প্রকাশ করলে

e. ঠিকাদার কাজের মধ্যবর্তী অবস্থায় যে কোন অযুহাতে কাজ সম্পাদনে অপরাগতা প্রকাশ করলে অথবা অন্য কাউকে সাব কন্ট্রাক দিলে অথবা কাজ ফেলে চলে গেলে তবা তার বর্তমান রানিং বিল ও জমাকৃত সিকিউরিটি ডিপোজিটের সমুদয় অর্থ বাজেয়াপ্ত করা হবে এবং ওয়ার্ক অর্ডার বাতাল করা হবে।

উপরোক্ত বক্তব্য, ব্যাখ্যাদি সমূহ সম্মখ প্রত্যক্ষ করে এবং উহার অর্থ বুঝে ও অনুধাবন করে সহি প্রদান করলাম